পেঁয়াজ কাটতে গিয়ে চোখের জল আ’ট’কাতে অনুসরণ করুন এই পদ্ধতিগুলো

বেশিরভাগ রান্নাতেই পেঁয়াজ ব্যবহার করি আম’রা। রোজকার রান্নার অন্যতম উপকরণ বলা যেতে পারে। পেঁয়াজ কা’টার সময় কম-বেশি প্রত্যেকের চোখ থেকেই জল বেরোয়, সে আপনি নিজে পেঁয়াজ কাটুন বা আপনার সামনে কেউ কাটুক।

পেঁয়াজ কা’টার সময় চোখে জল আসবে না, এমনটা হতেই পারে না। চোখ এমনই জ্বালা করতে থাকে যে, চোখ খোলা দুষ্কর হয়ে পড়ে। একে আপনি পেঁয়াজের চরিত্রও বলতে পারেন।

পেঁয়াজ কা’টার সময়ে তা থেকে প্রোপানেথিওল সালফার অক্সাইড নামে এক ধরনের গ্যাস বেরোয়। পেঁয়াজের বিভিন্ন এনজাইমের সঙ্গে যু’ক্ত হয়ে যা তৈরি করে সালফারের এক ধরনের গ্যাস। এই গ্যাস চোখের সংস্প’র্শে এসে এক ধরনের অ্যাসিড তৈরি করে, যার ফলে চোখ থেকে জল বের হয়।

যদি পেঁয়াজ কা’টার সময় আপনার চোখ থেকেও জল বেরোয়, তবে এটি এড়ানোর কিছু উপায় রয়েছে। ঘরোয়া কিছু উপায়ে আপনি পেঁয়াজ কা’টার সময় চোখের জল আ’ট’কাতে পারেন।

তাহলে আসুন জেনে নিই পদ্ধতিগু’লি কী’ কী’-

পেঁয়াজ ভিজিয়ে রাখু’ন

পেঁয়াজের খোসা ছাড়িয়ে, তা পানিতে ১০-১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখু’ন। তারপর পানি থেকে বের করে কাটুন। এতে পেঁয়াজ থেকে প্রায় সবটুকু সালফার যৌগই বেরিয়ে যায়। ফলে আপনার চোখে জল আসবে না।

ফ্রিজে রেখে দিন

কা’টার আগে পেঁয়াজ খোসা ছাড়িয়ে ১৫ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন। তারপর ভাল করে ধুয়ে তা কাটুন বা কা’টার আগে পেঁয়াজ নুন-পানিতে ভিজিয়ে রাখু’ন। ১৫ মিনিট পর জলে ধুয়ে তা কাটলে আর চোখ জ্বালা করবে না। লবনের পানি পেঁয়াজের সালফার শুষে নেয়।

গরম পানির কাছে পেঁয়াজ কাটুন

গরম পানি পেঁয়াজ থেকে বেরোনো ভাপকে বাধা দেয় এবং একে আপনার চোখ অবধি পৌঁছাতে বাধা দেয়। যাতে চোখ জ্বলে না বা জল আসে না। একটি পাত্রে গরম পানি রাখু’ন এবং তার কাছে পেঁয়াজ রেখে কাটুন। এতে চোখ থেকে জল পড়বে না।

চুইংগাম চিবোন

চুইংগাম চিবোনোর কারণে আপনি মুখ দিয়ে শ্বা’স নেন। আপনি যখন মুখ দিয়ে শ্বা’স নেন, তখন পেঁয়াজ থেকে বেরোনো ভাপ কম মাত্রায় আপনার নাক দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করে। এই কারণে চোখ থেকে অশ্রু বেরোয় না।

মোমবাতি জ্বালান

মোমবাতি থেকে নির্গত তাপ অ্যাসিড এনজাইমকে ল্যাকরিমাল গ্রন্থি পর্যন্ত পৌঁছতে বাধা দেয়। যার কারণে চোখ থেকে অশ্রু বের হয় না। পেঁয়াজ কা’টার সময় মোমবাতি জ্বালান এবং তার ঠিক পাশেই পেঁয়াজ কাটুন।

তথ্যসূত্র: বোল্ড স্কাই।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*