বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার থাকলে যেসব ভুল কখনই করবেন না

বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার থাকলে- গ্যাস সিলিন্ডারের মাধ্যমে প্রায়ই দুর্ঘ’টনা ঘটে। সচেতনতার মাধ্যমে এসব দুর্ঘ’টনা এড়ানো সম্ভব।দেখে নিন বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার থাকলে যেসব ভুল কখনোই করা যাবে না-গ্যাস সিলিন্ডারের সঙ্গে যে রাবার পাইপটি থাকে,

সেটিতে‘বিএসটিআই’ ছাপ থাকা বাধ্যতামূলক। কিন্তু তার সঙ্গে আরও একটি বিষয় খেয়াল রাখুন। গ্যাসের পাইপটি যেন দৈর্ঘ্যে এক থেকে দেড় ফুটের

বেশি লম্বা না হয়। সে ক্ষেত্রে পাইপ পরীক্ষার সময়ে অসুবিধা হবে।রেগুলেটরের নজেলটি যাতে পাইপ দিয়ে ভালো করে কভার করা থাকে সেটালক্ষ্য রাখুন।

গরম বার্নারের সঙ্গে যাতে গ্যাসের পাইপ কোনভাবে লেগে না থাকে এদিকেও নজর রাখতে হবে। পাইপটিনিয়মিত ভেজা কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করুন। কিন্তু ভুলেও সাবান পানি ব্যবহার করবেন না। ২ বছর পরপর অবশ্যই পাইপটি বদলে ফেলুন।

পরিষ্কার রাখার জন্য গ্যাসের পাইপটিকে কোন রকমের কাপড় বা প্লাস্টিক জাতীয় জিনিস দিয়ে মুড়ে রাখবেন না। যদি পাইপটি মুরে রাখা হয়তাহলে পাইপটি ফেটে গেলে বা লিক হলে ধরা পড়বে না।

গ্যাস লিক হচ্ছে বুঝতে পারলে বাড়ির কোনও ইলেক্ট্রিক অ্যাপ্লায়েন্স অন করবেননা। ওভেন, রেগুলেটর বন্ধ করে দরজা-জানালা খুলে দিন।গ্যাস লিক করার পরে যদি কিছুক্ষণের মধ্যে গন্ধ আসা বন্ধ না হয়, তাহলে গ্যাস

ডিস্ট্রিবিউটরের অফিস বা হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করুন। সিলিন্ডার থেকে রেগুলেটর আলাদা করে দিয়ে সিলিন্ডারের মুখে সেফটি ক্যাপও পরিয়ে দিতে পারেন।খালি সিলিন্ডার থেকে গ্যাসের রেগুলেটর খোলার সময় আশপাশে কোনও মোমবাতি বা প্রদীপ জাতীয় জিনিস যাতে না জ্বলে, তাও খেয়াল রাখুন।

একটি ঘরে দুটি সিলিন্ডার রাখার জন্য অন্তত ১০ বর্গফুট জায়গা থাকা জ’রুরি। এমন জায়গায় সিলিন্ডার রাখবেন না, যেখানে সহজেই তা অতিরিক্ত গরম হয়ে যেতে পারে।

সিলিন্ডারের ওপরে কখনোই কোনও কাপড়, বাসন ইত্যাদি রাখবেন না।যেভাবে বুঝবেন সিলিন্ডারে কতটুকু গ্যাস আছেঅনেকে সিলিন্ডার ঝাঁকিয়ে বোঝার চেষ্টা করেন কতটুকু গ্যাস আছে। কিন্তু তাতেও সঠিক

আন্দাজ পাওয়া মুশকিল হয়। রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার নিয়ে একটি সমস্যায় অনেকেই পড়েন। কারণ, আগে থেকে বুঝতে না পারায় অনেকসময়েই রান্না করতে করতেই সিলিন্ডারের গ্যাস ফুরিয়ে যায়। বাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার থাকলে ভাল, না থাকলে ভোগান্তি আরও বাড়ে। খবর এবেলা।

ভারতীয় একটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, সিলিন্ডারে কতটা গ্যাস আছে , একটি ভিজে কাপড়ের সাহায্যে তা সহজেই বোঝা সম্ভব।

মধ্যপ্রদেশের একটি সায়েন্স কলেজের অধ্যাপক বিজেন্দ্র রায়ের দাবি, গ্যাস কতটা আছে তা বোঝার জন্য প্রথমে ভিজে কাপড় দিয়েসিলিন্ডারটিকে ভাল করে মুছতে হবে। এমন ভাবে মোছা উচিত, যাতে সিলিন্ডারের গায়ে কোনও ধুলোর আস্তরণ থাকলেও তা উঠে যায়।

মোছা শেষ হলে দেখা যাবে সিলিন্ডার শুকোতে শুরু করেছে। দু’-তিন মিনিট পরে খেয়াল করলে দেখা যাবে সিলিন্ডারের কিছুটা অংশশুকিয়েছে, বাকি অংশ ভিজে রয়েছে। সেই অংশ শুকোতে একটু সময় লাগছে।প্রতিবেদনের দাবি অনুযায়ী, যতটা অংশ ভিজে থাকবে সেইঅংশেই গ্যাস রয়েছে বলে ধরে নিতে হবে।অধ্যাপক রায় জানিয়েছেন, যেখানে তরল কিছু থাকে, সেখানকার তাপমাত্রা খালি জায়গার তুলনায়কম হয়। ফলে সিলিন্ডারের যে অংশটুকুতে এলপিজি রয়েছে, সেই অংশটি শুকোতেও সময় বেশি লাগে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*